হোমপেজ ফিচারস বরফের ভেতর দু’ঘন্টা কাটিয়ে বিশ্বরেকর্ড অস্ট্রীয় নাগরিকের

বরফের ভেতর দু’ঘন্টা কাটিয়ে বিশ্বরেকর্ড অস্ট্রীয় নাগরিকের

নতুন বিশ্বরেকর্ড গড়তে বরফে ভরা জারে শরীর ডুবিয়ে অস্ট্রিয়ার নাগরিক জোসেফ কোয়েবার্ল (Image: Reuters)

আপনাকে যদি বলা হয় একটি বরফে ভরা বাক্সে যত বেশি সময় সম্ভব বসে থাকতে, আপনি কতক্ষণ পারবেন তা করতে? এক মিনিট? দু’মিনিট? আরেকটু বেশি?

সম্প্রতি এক অ্যাথলেট এই কাজটিই করলেন টানা দু’ঘন্টা ধরে। অস্ট্রিয়ার ক্রীড়াবিদ জোসেফ কোয়েবার্ল গত শনিবার বরফে পূর্ণ একটি স্বচ্ছ কাঁচের বাক্সে একটানা দু’ঘন্টার বেশি সময় বসে থেকে গড়েছেন বিশ্বরেকর্ড। চ্যালেঞ্জটি সম্পন্ন করার সময় তার পরনে ছিল শুধুই একটি সুইমস্যুট!

সবচেয়ে বেশি সময় বরফের মধ্যে অবস্থান করতে পারার এর আগের বিশ্বরেকর্ডটি ছিল চীনের জিন শোংহাওয়ের করা। ২০১৪ সালে দেশটির জিয়েমেন অঞ্চলের এই অ্যাথলেট বরফে ঠাসা একটি বাক্সে পুরো শরীর ডুবিয়ে বসে থাকতে পেরেছিলেন একটানা ১ ঘন্টা ৫৩ মিনিট ১০ সেকেন্ড। আর এবার একই চ্যালেঞ্জ অস্ট্রিয়ার জোসেফ কোয়েবার্ল পূরণ করলেন ২ ঘন্টা ৮ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড ধরে।

কোয়েবার্লের বিশ্বরেকর্ড গড়ার আয়োজনটি অনুষ্ঠিত হয় অস্ট্রিয়ার রাজধানী ভিয়েনার প্রধান রেল স্টেশনের সামনে। কয়েকশো মানুষের উপস্থিতিতে একটি বড় কাঁচের বাক্সের ভেতরে ঢোকেন কোয়ের্বাল। এর ওপরের অংশটি ছিল খোলা। সেখান দিয়ে বালতিতে করে বাক্সের ভেতর ঢালা হয় বরফের টুকরো। কোয়েবার্লের প্রায় গলা পর্যন্ত বরফে পূর্ণ হয়ে যাওয়ার পরপরই শুরু হয় সময় গণনা।

আগের রেকর্ডটি ভাঙার নির্ধারিত সময় পার হয়ে যাওয়ার পরও জোসেফ কোয়েবার্ল সিদ্ধান্ত নেন আরও কিছু সময় বাক্সের ভেতরে অবস্থান করার। সেইমত দু’ঘন্টারও বেশি সময় সেখানে থাকেন তিনি। সব মিলিয়ে ২ ঘন্টা ৮ মিনিট ৪৭ সেকেন্ড পর বরফের স্তূপ থেকে উঠে আসেন কোয়েবার্ল। এই পুরো সময়টা জুড়ে নিরাপত্তার জন্য কিছুক্ষণ পরপর তার শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা করা হয়। বাক্স থেকে বেরিয়ে আসার পর সেখানে রাখা অ্যাম্বুলেন্সে কোয়েবার্লের স্বাস্থ্য পরীক্ষাও করেন চিকিৎসকরা।

জোসেফ কোয়েবার্লের জন্য প্রকাশ্যে বরফের মধ্যে ডুবে থাকার ঘটনা নতুন নয়। প্রথমবার  তিনি একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানের জন্য এক ঘন্টা বরফে ভরা বাক্সে কাটিয়েছিলেন। সেই অনুষ্ঠানের পরই কোয়েবার্ল সিদ্ধান্ত নেন এই চ্যালেঞ্জের বর্তমান বিশ্বরেকর্ডটি ভেঙে নতুন রেকর্ড স্থাপন করার।

সফলভাবে বরফের বাক্সে দু’ঘন্টারও বেশি সময় কাটানোর পর গণমাধ্যমেকে জোসেফ কোয়েবার্ল জানান, ঠান্ডার তীব্র যন্ত্রণা উপেক্ষা করার জন্য তিনি পুরোটা সময় জুড়ে নানা ইতিবাচক ভাবনা মনের মধ্যে আনছিলেন।

তিনি বলেন, “শীতের তীব্রতা ভূলে থাকতে আমি নানারকম ইতিবাচক চিন্তা করছিলাম। এতে করে আমি ঠান্ডার আঘাতের কথা মনে আসা ঠেকাতে পারছিলাম।“

দীর্ঘতম সময়ে বরফের মধ্যে ডুবে থাকার বিশ্বরেকর্ডের সাক্ষী হতে ভিয়েনার অনুষ্ঠানস্থলে জড়ো হয়েছিলেন কয়েকশো মানুষ। তারা এই দু’ঘন্টা ধরে জোসেফ কোয়েবার্লকে ক্রমাগত উৎসাহ দেন। রেকর্ড গড়ার পর বরফের স্তূপ থেকে বেরিয়ে কোয়েবার্ল রসিকতা করে বলেন, অনেকক্ষণ পর পিঠে রোদ লাগায় দারুণ লাগছে তার।

কোয়েবার্ল এর আগে ২০১৯ সালেও একই রকম আরেকটি আয়োজন করেছিলেন, যেখানে তিনি এবারের চেয়ে আধাঘন্টা কম সময় বরফের মধ্যে অবস্থান করেছিলেন।

এদিকে জানা গেছে, জোসেফ কোয়েবার্ল তার নতুন গড়া এবারের বিশ্বরেকর্ডটিও ভেঙে আরও বেশি সময়ে বরফ ভরা বাক্সে কাটানোর পরিকল্পনা করছেন। এটি তিনি সম্পন্ন করবেন আগামী বছর কোন একসময় যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেসে।