Home বিজ্ঞান ফ্রান্সে পাওয়া গেল ডাইনোসরের প্রকান্ড এক হাড়

ফ্রান্সে পাওয়া গেল ডাইনোসরের প্রকান্ড এক হাড়

(Image: Georges Gobet/ AFP/ Getty Images)

ফ্রান্সের দক্ষিণ-পশ্চিমাংশে ডাইনোসরের প্রকান্ড একটি হাড় খুঁজে পেয়েছেন বিজ্ঞানীরা। গত প্রায় এক বছর ধরে ঐ এলাকায় প্রাগৈতিহাসিক প্রাণীদের জীবাশ্মের সন্ধানে খননকাজ চালিয়ে যাচ্ছেন তারা।

খুঁজে পাওয়া ২ মিটার (৬.৬ ফুট) দৈর্ঘ্যের হাড়টি ডাইনোসরের উরুর অংশের বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। হাড়টি সরোপড প্রজাতির ডাইনোসরের। খুব লম্বা গলা আর লম্বা লেজবিশিষ্ট ডাইনোসরের এই গোত্রটি ছিল তৃণভোজী।

প্রাচীন জুরাসিক যুগের শেষাংশে এই প্রাণীটি উল্লেখযোগ্য সংখ্যায় বিচরণ করত পৃথিবীর বুকে। এটিকে ডাইনোসর প্রজাতি তো বটেই, গোটা প্রাণীকূলের মধ্যেই সবচেয়ে বড় জীবগুলোর অন্যতম বলে ধরা হয়।

হাড়টি খুঁজে বের করা প্রত্নজীবাশ্মবিদরা বলছেন, তারা অস্থিটির আকৃতিতে নয়, বরং এত দীর্ঘকাল পরেও এটির প্রায় অক্ষত অবস্থা দেখে আশ্চর্য হয়েছেন। তারা বলছেন, এত বড় অস্থি সময়ের সাথে সাথে সাধারণত ক্ষয়ে যেতে থাকে এবং এক সময় ভেঙ্গে পড়ে।

খুঁজে পাওয়া হাড়টি এমনই এক সরোপড প্রজাতির ডাইনোসরের দেহের

ঠিক কতখানি বড় ছিল হাড়টির মালিক?

পৃথিবীতে প্রায় ১৪ কোটি বছর আগে পর্যন্ত বিচরণ করত সরোপড প্রজাতির ডাইনোসর। এরপরই এগুলো বিলুপ্ত হয়ে যায়। এই প্রজাতির এক একটি ডাইনোসরের ওজন হত ৪০ থেকে ৫০ টন।

ঠিক একই খনন এলাকা থেকে ২০১০ সালেও অনুরূপ একটি হাড় খুঁজে পাওয়া গিয়েছিল। সেটিও ছিল সরোপড প্রজাতির এবং দেহের উরুর অংশের। ২.২ মিটার লম্বা সেই হাড়টিরই ওজন ছিল প্রায় ৫০০ কেজি। এবারের হাড়টির ওজনও কাছাকাছিই হবে বলে ধারণা বিজ্ঞানীদের। তবে হাড়টি এত বড় ও ভারী যে এটি তুলে আনতে ক্রেনের সাহায্য নিতে হবে এবং সপ্তাহখানেক সময় লেগে যাবে।

এলাকাটিতে আর কি কি পাওয়ার আশা করছেন বিজ্ঞানীরা?

বিশাল এই অস্থিটি পাওয়া গেছে ফ্রান্সের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের অ্যানজেক অঞ্চলে। কোগনাক শহরের কাছে চারেন্তে প্রদেশের আঙুরক্ষেতে ভরা এই এলাকাটিতে এবছরের গ্রীষ্মকাল থেকে প্রায় ৭০ জন বিজ্ঞানী অনুসন্ধান চালাচ্ছেন।

২০১০ সালে থেকে শুধু এই এলাকা থেকেই প্রায় ৪০টি ভিন্ন ভিন্ন প্রজাতির প্রাণীর শরীরের ৭৫০০ এরও বেশি জীবাশ্ম পাওয়া গেছে। হাড় পাওয়া গেছে স্টেগোসরাস ও অস্ট্রিচ প্রজাতির ডাইনোসরের। বিজ্ঞানীরা এখান থেকে ডাইনোসরসহ অন্যান্য প্রাণীর আরও অনেক দেহাংশ খুঁজে পাওয়ার আশা করছেন।