Home বিজ্ঞান সাবধান! আপনার দুপুরের ঘুম ডেকে আনতে পারে ডায়বেটিসও

সাবধান! আপনার দুপুরের ঘুম ডেকে আনতে পারে ডায়বেটিসও

অলস দুপুরে একটুখানি ভাতঘুম কারও জন্য বিলাসিতা, কারও জন্য অভ্যাস। বছরের পর বছর ধরে তর্ক চলে এসেছে এই ভাতঘুম শরীরের জন্য কতটা উপকারী আর কতটা ক্ষতিকর। যারা এর বিপক্ষে, তাদের পাল্লা ভারী করে সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা গেছে, যাদের ভাতঘুমের পরিমান দৈনিক ১ ঘন্টার বেশি, তাদের টাইপ-২ ক্যাটাগরির ডায়বেটিস হওয়ার ঝুঁকি ৪৫ শতাংশ পর্যন্ত বেড়ে যায়। এই ধরনের ডায়বেটিস স্থূলতা ও কর্মক্ষমতা হ্রাসের মত সমস্যা সৃষ্টি করে।

বর্তমান বিশ্বে বিপুল সংখ্যক মানুষের মাথাব্যাথার কারণ হয়ে আছে ডায়বেটিস। অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন এবং খাদ্যাভাস, বিশেষ করে চিনিযুক্ত খাবার মাত্রাতিরিক্ত পরিমানে খেলে শরীরে শর্করার পরিমান বেড়ে যায় অস্বাভাবিক হারে। এটিই সাধারণভাবে ডায়বেটিস নামে পরিচিত। শর্করার এই মাত্রা নিয়ন্ত্রণে রাখতে না পারলে অথবা সময়মত চিকিৎসা না করালে স্থায়ী অন্ধত্ব, স্নায়ু বিকল হওয়া, কিডনির সমস্যা থেকে শুরু করে এমনকি মৃত্যু পর্যন্ত ঘটতে পারে। সুতরাং যাদের দুপুরে খাওয়ার পরপরই বিছানায় উঠে পড়ার অভ্যাস আছে, তাদের এখনই অভ্যাসটি নিয়ে ভাবনাচিন্তা করার সময় এসে গেছে।

অবশ্য টোকিও বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ইয়ামাদা তোমাহিদে এবং তার সহকর্মীদের প্রায় ৩০০,০০০ এশীয় ও ইউরোপীয় বংশোদ্ভূত মানুষের ওপর করা এই গবেষণায় এটিও দেখা গেছে, যাদের ভাতঘুমের দৈনিক পরিমান ৪০ মিনিটের কম, তাদের ডায়বেটিস হওয়ার ঝুঁকি প্রায় থাকেনা বললেই চলে। অবশ্য সেটিও ব্যক্তির খাদ্যাভ্যাস এবং শারীরিক অন্য কোন সমস্যা থাকা না থাকার ওপর নির্ভর করে।